বিটিবেগুন বিসম্বাদ (ডকুমেন্টারি)

“বিসম্বাদ এই যে,বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএআরআই) মার্কিন কোম্পানি মনসান্টো ও তাদের ভারতীয় দোসর মাহিকোর কাছে বাংলাদেশের প্রাণসম্পদ বেগুনের মালিকানা তুলে দেয়ার ব্যবস্থা করেছে। জিন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ব্যাকটেরিয়ার জিন ঢুকিয়ে স্থানীয় বেগুনের জাতের বিকৃতি ঘটিয়েছে তারা। তাদের দাবি, এসব বেগুন নিজের ভিতরেই মাজরা পোকার বিষ তৈরি করবে। এতে ওই পোকার জন্য আলাদা করে কীটনাশক দিতে হবে না, উৎপাদন খরচ কমবে। প্রকল্প মোতাবেক, ২০১৪ সালে দেশের ২০ জন কৃষকের হাতে এবং ২০১৫ সালে আরো ১০৬ জনের কাছে বিটিবেগুনের চারা তুলে দিয়েছে বিএআরআই। মার্কিন দাতা সংস্থা ইউএসএইড এর অর্থয়নে কৃষি জীব প্রযুক্তি সহায়তা প্রকল্প দুই বা এবিএসপি-২ এর অধীনে চলছে বিটিবেগুন গবেষণা ও চাষের নামে নানা ছলচাতুরি। প্রথম দু’বছর ফলন বিপর্যয়ের কারনে লোকসান গুনতে হয়েছে কৃষককে। বৈজ্ঞানিক রীতি, দেশি ও আন্তর্জাতিক আইন-গাইডলাইন-বিধিমালা-প্রটোকল ভেঙেই চলছে প্রকল্পের কাজ। জিম্মি করা হচ্ছে কৃষককে। লঙ্ঘন করা হচ্ছে কোটি কোটি মানুষের নিরাপদ খাদ্যের অধিকার। যথাযথ বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা না হওয়ায়, পরিবেশ ও মানবস্বাস্থ্যের উপর এই বেগুনের সম্ভাব্য ক্ষতিকর প্রভাব নিয়ে আমরা শঙ্কিত। তার ওপর এই বেগুনের মেধাস্বত্ব নিয়ন্ত্রণ করবে মনসান্টো-মাহিকো। সরকারি প্রতিষ্ঠান বিএআরআই ও বেসরকারি বীজ, কৃষি-রাসায়নিক কোম্পানি ‘লাল তীর সীডস লিঃ’ মনসান্টো-মাহিকোর সাথে সেই চুক্তিই সম্পন্ন করেছে। তবে এই ষড়যন্ত্রের সবচাইতে বড় ভূক্তভোগী বেগুন নিজে। বেগুনের আদি উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশ। এখানকার বেগুনের বৈচিত্র ধ্বংস করতে ধেয়ে আসছে বিটিবেগুনের বোমা। আমরা ‘বিটিবেগুন বিসম্বাদ’ তথ্যচিত্রে এই আগ্রাসনের চিত্রই তুলে ধরতে চেয়েছি আপনাদের সামনে।” –

-Bt Brinjal In The Dock

অনুসন্ধান

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

আর্কাইভ

বায়ুদূষণের মাত্রা

সর্বাধিক পঠিত

Sorry. No data so far.