১৮৭০: ভ. ই লেনিনের জন্ম

Share


২২এপ্রিল / ৯বৈশাখ

লেনিন জার শাসিত রাশিয়ার ভল্গা নদীর তীরে সিমবির্স্ক শহরে জন্ম নেন। ছাত্রজীবন থেকে মার্ক্সবাদী দর্শনে প্রভাবিত লেনিন বিপ্লবী আন্দোলনে জড়িত ছিলেন।তাঁর বড়ভাই আলেক্সান্ডার কে স্বৈরাচারি জার হত্যার ষড়যন্ত্রের অপরাধে ফাঁসি দেওয়া হয়। বিপ্লবী অ্যানা ইলিচনিনা ছিলেন লেনিন-এর বোন এবং সহযোদ্ধা। বিপ্লবি প্রচেষ্টা চালানোর ফলে ১৮৯৭ সালে তাঁকে পূর্ব সাইবেরিয়ায় নির্বাসনে দেওয়ার পরে ৩০ টি বই লিখেন। তার বিখ্যাত বই “রাশিয়ার পুঁজিবাদের বিকাশ” সে সময়ই রচিত। রাশিয়ান স্যোশাল ডেমোক্র্যাটিক লেবার পার্টি তৈরী করবার সময় লেনিন ছদ্মনাম গ্রহন করেন। তার নেতৃত্বে শ্রমিক-কৃষক-মেহনতি মানুষের বলশেভিক পার্টি একটি নতুন সমাজের দিকে রাশিয়াকে নিয়ে যায়। রাশিয়াতে প্রথম মার্ক্সবাদী বিপ্লবী তত্ত্বের প্রয়োগ ঘটে। রাশিয়ার সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব সারা দুনিয়ার নিপীড়ত মানুষদের দেশে দেশে ঐক্যবদ্ধ হতে উৎসাহী করে, এবং সারা দুনিয়াতেই পুঁজিবাদ ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী দল গঠন এবং বিপ্লবি প্রচেষ্টা ছড়িয়ে পরে।

বইয়ের কাভার দিতে হবে।

লেনিন

সুকান্ত চট্টোপাধ্যায়

লেনিন ভেঙেছে রুশে জনস্রোতে অন্যায়ের বাঁধ,
অন্যায়ের মুখোমুখি লেনিন প্রথম প্রতিবাদ।
আজকেও রাশিয়ার গ্রামে ও নগরে
হাজার লেনিন যুদ্ধ করে,
মুক্তির সীমান্ত ঘিরে বিস্তীর্ণ প্রান্তরে।
বিদ্যুৎ-ইশারা চোখে, আজকেও অযুত লেনিন
ক্রমশঃ সংক্ষিপ্ত করে বিশ্বব্যাপী প্রতীক্ষিত দিন,-
বিপর্যস্ত ধনতন্ত্র, কন্ঠরুদ্ধ, বুকে আর্তনাদ;
-আসে শত্রুজয়ের সংবাদ।

সযত্ন মুখোশধারী ধনিকেরও বন্ধ আস্ফালন,
কাঁপে হৃৎযন্ত্র তার, চোখে মুখে চিহ্নিত মরণ।
বিপ্লব হয়েছে শুরু, পদানত জনতার ব্যগ্র গাত্রোত্থানে,
দেশে দেশে বিস্ফোরণ অতর্কিতে অগ্নুৎপাত হানে।
দিকে দিকে কোণে কোণে লেনিনের পদধ্বনি
আজো যায় শোনা
দলিত হাজার কন্ঠে বিপ্লবের আজো সম্বর্ধনা।
পৃথিবীর প্রতি ঘরে ঘরে,
লেনিন সমৃদ্ধ হয় সম্ভাবিত উর্বর জঠরে।
আশ্চর্য উদ্দাম বেগে বিপ্লবের প্রত্যেক আকাশে
লেনিনের সূর্যদীপ্তি রক্তের তরঙ্গে ভেসে আসে;
ইতালী, জার্মান, জাপ, ইংল্যান্ড, আমেরিকা, চীন,
যেখানে মুক্তির যুদ্ধ সেখানেই কমরেড লেনিন।
অন্ধকার ভারতবর্ষঃ বুভুক্ষায় পথে মৃতদেহ-
অনৈক্যের চোরাবালি; পরস্পর অযথা সন্দেহ;

দরজায় চিহ্নিত নিত্য শত্রুর উদ্ধত পদাঘাত,
অদৃষ্ট ভর্ৎসনা-ক্লান্ত কাটে দিন, বিমর্ষ রাত
বিদেশী শৃঙ্খলে পিষ্ট, শ্বাস তার ক্রমাগত ক্ষীণ-
এখানেও আয়োজন পূর্ণ করে নিঃশব্দে লেনিন।

লেনিন ভেঙেছে বিশ্বে জনস্রোতে অন্যায়ের বাঁধ,
অন্যায়ের মুখোমুখি লেনিন জানায় প্রতিবাদ।
মৃত্যুর সমুদ্র শেষ; পালে লাগে উদ্দাম বাতাস
মুক্তির শ্যামল তীর চোখে পড়ে, আন্দোলিত ঘাস।
লেনিন ভূমিষ্ট রক্তে, ক্লীবতার কাছে নেই ঋণ,
বিপ্লব স্পন্দিত বুকে, মনে হয় আমিই লেনিন।।  


লেনিনের বক্তৃতা শুনতেঃ https://www.youtube.com/watch?v=lzf3FRSbEUk

লেনিনের লেখা পড়তে ক্লিক করুন।  

Lenin knew that revolution wouldn’t happen overnight – we must bear this in mind as capitalism fails us today- Slavoj Zizek
Seize the Day: Lenin’s Legacy
Share

অনুসন্ধান

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

আর্কাইভ

বায়ুদূষণের মাত্রা

সর্বাধিক পঠিত

Sorry. No data so far.