৩০ জ্যৈষ্ঠ,১৩ জুন

২০১৭

টানা ভারি বর্ষণে রাঙামাটি জেলায় পাহাড় ধসে মাটিচাপা পড়ে মঙ্গলবার রাত ১০টা পর্যন্ত ৭৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। স্বাধীনতার পড়ে পাহাড়ধ্বসে এটাই সবচাইতে বড় ঘটনা।

২০১৫

মানুষ, বৃক্ষের মতো আনত হও, হও সবুজ…।- নিজের ৮৫ তম জন্মবার্ষিকীতে দ্বিজেন শর্মা।

২০১৩

অভ্যন্তরীন সংস্থা ফিনানশিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সের চাপে এবং কালো তালিকাভুক্তি এড়াতে তড়িঘড়ি করে সন্ত্রাসবাদবিরোধী(সংশোধন) বিল ২০১৩ পাস করা হয়েছে। -প্রথম আলো

-> ব্যাংকিং ব্যবস্থায় যেটা হচ্ছে সেটা পিউর চুরি।- অর্থমন্ত্রী

-> জ্বালানি বিভাগের বৈঠকে সিদ্ধান্ত,  নাইকোকে দেশ ত্যাগ করতে দেয়া ঠিক হবে না। ট্যাংরাটিলা দুর্ঘটনার কারণে বাংলাদেশের ৭৫০ কোটি টাকা খশতির দাবি পূরণে নাইকো কোনো সাড়া দেয়নি।

২০১১

বিএনপি-জামায়াতের ছত্রিশ ঘন্টা হরতালের দ্বিতীয় দিন। ভ্রাম্যমান আদালতে ৯ জনের সাজা।

-> কারাগারে শীর্ষ সন্ত্রাসীরা ল্যাপটপ ব্যবহার করে তাদের অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছে।- ইত্তেফাক।

-> ১৯৯৭ সালের ১৪ জুনের মাগুরছড়া দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণের ১৪ হাজার কোটি টাকা পাওয়া যায়নি, নিশ্চুপ পেট্রোবাংলা।

-> তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন সংসদের একমাত্র স্বতন্ত্র সদস্য ফজলুল আজিমকে বনদস্যু বললে, তিনি ওয়াক আউট করে তিন মিনিট পড়ে ফিরে এসে বলেন, “আমি যদি বনদস্যু হই তা হলে এই ৩০০ সংসদ সদস্য কী?

২০০৯

তিন বছরে দেশে কালো টাকার ইতিহাস উঠে যাবে। – এফবিসিসিআইয়ের আশা।

২০০৮

বাতাসে গ্রহণযোগ্য কার্বন মাত্রা ২৯০-৩০০ ছাড়িয়ে ঢাকার বাতাসে বছরে ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে ৩৫০ পিপিএম।

-> মাগুরছড়া বিস্ফোরণে একটি সম্পুরক চুক্তির দোহাই দিয়ে শেভরন ক্ষতিপূরণ দিয়েছে মাত্র ৪৩ লাখ টাকা। ঐ বিস্ফোরণের জন্য বিগত সরকার ইউনিকলের কাছে ৩ হাজার ৯শ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছিল।

২০০৭

শেখ হাসিনা, শেখ সেলিম, শেখ হেলাল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে তেজগাঁও ও গুলশান থানায় দুটি চাঁদাবাজির মামলা করেছে আ.লীগের ঘনিষ্ঠ নুর আলী ও আজম জে. চৌধুরী।

২০০৬

প্রশাসন থেকে দেওয়ানী ও ফৌজদারি উভয় রকম বিচারব্যবস্থা স্বতন্ত্র ও পৃথক অবস্থানে না থাকলে বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থার কোনো জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গ্রহণযোগ্যতা থাকবে না। – জনকণ্ঠকে সাবেক প্রধান বিচারপতি মোস্তফা কামাল।

২০০৫

নতুন সিমের উপর বারশ টাকা করারোপের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করলে বিনিয়োগ পূর্ণ বিবেচনা করা হবে। -৪ বেসরকারি মোবাইল অপারেটরের সম্মেলনে।

২০০২

প্রবল বর্ষণে দেশের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত। হাজার হাজার হেক্টর জমির ফসলের ক্ষতি। প্রায় ৫০ কোটি টাকার চিংড়ি বিনষ্ট।

২০০১

বাংলাদেশ-ভারত কর্মকর্তা পর্যায়ের ২ দিনের বৈঠক। সীমান্ত বিরোধ নিস্পত্তিতে যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের কার্যপরিধি চূড়ান্ত। দুটি আলাদা যৌথ কমিটি একদিকে ছিটমহল চিহ্নিত করার এবং অন্যদিকে ছয় কিলোমিটার সীমান্ত চিহ্নিত করার কাজ করবে।

২০০০

জাতিসংঘের সন্দেহ বাংলাদেশে আফগান তালেবানদের ব্যাংক একাউন্টে কোটি কোটি টাকা লেনদেন হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংক সন্দেহভাজনদের তলব করছে।

-> বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ নেই। – জাপানি থাই উদ্যেক্তাদের মত।

১৯৯৮

বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য যুক্তরাষ্ট্র তেল, গ্যাস, টেলিফোন যন্ত্রাংশ, বিদ্যুৎ, এয়ারক্রাফট, কম্পিউটার, টেক্সটাইল মেশিনারিজ, ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিস, সার ইত্যাদি খাত চিহ্নিত করেছে। – দৈনিক মুক্তকণ্ঠ।

-> দেশে মোট ৩০ হাজার ৯০৯ টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক শুন্যপদের সংখ্যা ১০ হাজার ৯৫৭। সরকারী স্কুল নেই সাড়ে ৫ হাজার গ্রামে। -’দৈনিক সংবাদ’।

১৯৯৬

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের “সংখ্যাগরিষ্ঠতা” লাভ। নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লায় নিহত ২ জন। কক্সবাজারে পৃথক ঘটনায় নিহত ৯ জন। বিভিন্নস্থানে সংঘর্ষে আহত ৪৫।

১৯৯১

বরিস ইয়েলিতসন রুশ প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত।

১৯৯০

সারাদেশে ৪৩টি সুতা ও বস্ত্রকলে শ্রমিক কর্মচারীদের ২৪ ঘণ্টা ধর্মঘট।

১৯৮৩

ঢাকা জাদুঘরকে জাতীয় জাদুঘর হিসাবে ঘোষণা।

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জাদুঘর ও সংগ্রহশালা। বাংলাদেশের ঐতিহাসিক, প্রত্নতাত্ত্বিক, নৃ-তাত্ত্বিক, শিল্পকলা ও প্রাকৃতিক ইতিহাস সম্পর্কিত নিদর্শনাদি সংগ্রহ, সংরক্ষণ, প্রদর্শন ও গবেষণার উদ্দেশ্যে এই জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল। ব্রিটিশ শাসনামলে ১৯১৩ সালে ঢাকা জাদুঘর নামে এর যাত্রা শুরু হয়েছিল। বর্তমানে রাজধানী ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে ৮.৬৩ একর জমির উপর একটি চারতলা ভবনে জাদুঘরটি অবস্থিত। এ জাদুঘরে ৪৪টি প্রদর্শনী কক্ষ, তিনটি অডিটোরিয়াম, একটি সমৃদ্ধ গ্রন্থাগার ও দুটি অস্থায়ী প্রদর্শনী কক্ষ রয়েছে।

জাতীয় জাদুঘরের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে চারটি শাখা জাদুঘর। এগুলি হলো সিলেটের ওসমানী জাদুঘর, ঢাকার আহসান মঞ্জিল জাদুঘর, চট্টগ্রামের জিয়া স্মৃতি জাদুঘর এবং ময়মনসিংহের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন সংগ্রহশালা।

১৯৮২

জাতীয়তাবাদি দলের সদর দফতরের জন্য দখলকৃত নয়া পল্টনের ভবনটি প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর।

১৯৭৮

রংপুরে তিস্তার বন্যা।

১৯৭৬

যুগোস্লাভ বানিজ্য প্রতিনিধিদলের ঢাকা আগমন।

১৯৭৩

৩০ শে জুনের মধ্যে সকল বকেয়া বিদ্যুৎ ও টেলিফোন বিল পরিশোধের নির্দেশ শেখ মুজিবুর রহমানের।